16/04/2018

রাশিয়ায় তিন যুগ ধরে চলছে একটি ভূতুড়ে রেডিও স্টেশন

রাশিয়ায় একটু ভূতুড়ে রেডিও স্টেশনের সন্ধান পাওয়া গেছে। রেডিও স্টেশনটি দেশটির এসটি পিটারবার্গ শহর থেকে দূরে নয়। আয়তাক্ষেত্রের একটি জায়গায় ঝংপড়া একটা রেডিও টাওয়ার আছে। এটিকে রেডিও স্টেশনের হেডকোয়ার্টার মনে হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত কেউই স্টেশনটির মালিকানা দাবি করেননি। বা স্টেশনটির সম্প্রচার কাজের সঙ্গে জড়িত এমনটিও কেউ দবি করেননি। কেন্দ্রটি গত ৩০ বছর ধরে প্রতিটি সেকেন্ডে একঘেয়েমি শব্দ সম্প্রচার করে চলেছে। প্রতি সেকেন্ড পরপরই অন্য একটি শব্দ সংযুক্ত হচ্ছে। মনে হয় যেন ভৌতিক সাইরেন বেজে চলেছে।

সপ্তাহে এক বা দুইবার একজন নারী বা পুরুষ রাশিয়ার ভাষায় একটি শব্দ পড়তে থাকবে ‘ডিনগাহই’। আর অর্থ কৃষি বিশেষজ্ঞ। বিশ্বের যে কোনো জায়গা থেকে যে কেউ ৪৬২৫ কেএইজেড তরঙ্গে টিউন করে তা শুনতে পারবে। এনিয়ে নিয়ে ভাবনারও কমতি নেই। যদি মনে ষড়তন্ত্রমূলক থিউরিতে রেডিও স্টেশনের এই ছক আঁকা হয়ে থাকে তা হবে বিভ্রান্তিকর।

বর্তমানে ১০ হাজারের মত অনলাইন রেডিও স্টেশন আছে। এর মধ্যে দ্য পিপ এবং স্কএকি হুইল নামে দুইটি এমন ভৌতিক স্টেশন আছে। কে জানে এগুলো রহস্য করার জন্য খোলা হয়েছে কিনা। এই দুই চ্যানেলর শ্রোতারা কি শুনছেন এ ব্যাপারে তাদের কোনো ধারণা নাই। লন্ডনের সিটি ইউনিভার্সিটি সঙ্কেত বিশেষজ্ঞ ডেভিড স্টুপেলস বলেন, এই সঙ্কেতে আসলেই কোনো তথ্য নাই।

এই ফ্রিকোয়েন্সি রাশিয়ার সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রণ করছে মনে করা হলেও তারা বরাবরই বিষয়টি অস্বীকার করে আসছে। এই কেন্দ্রের সাইরেনের মাধ্যমে কি ঘটতে পারে এ বিষয়ে নানানজনের নানা ব্যাখ্যা রয়েছে। বলা হচ্ছে এমনও হতে পারে যে সাবমেরিনের সঙ্গে যুক্ত থেকে ভিনদেশী কারো সঙ্গে কথা বলতে কেন্দ্রটি কাজ করে চলেছে। আবার বলা হচ্ছে এই কেন্দ্রটি ‘মৃত হাত’ হিসেবে সঙ্কেতের কাজ করবে। এর ব্যাখ্যায় বলা হয়, রাশিয়া পারমানবিক হামলার শিকার হলে রেডিও সঙ্কেত বন্ধ হয়ে তৎক্ষণাৎ প্রতিশোধ নিতে লক্ষ্যস্থলে পাল্টা পারমানবিক আক্রমণ চালাবে। বিবিসি

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook

Instagram

You Tube

"At the end of Love there is Pure Love"

Pure Love © 2018 | Privacy Policy