জীবন দিয়ে হলেও তোমাকে রক্ষা করব: সানি লিওনি

ভারতের জম্মুর কাঠুয়া জেলায় আট বছরের এক শিশুকে লাগাতার ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় উত্তাল হয়ে আছে পুরো দেশ। ভয়াবহ এ ঘটনা শিহরণ জাগিয়েছে প্রতিটি মানবিক হৃদয়ে। বিষয়টি নিয়ে তাই চুপ করে থাকছেন না অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও।

বর্ষীয়ান গীতিকার জাভেদ আখতার থেকে শুরু করে অনিল কাপুর, সোনম কাপুর, দিয়া মির্জা, সঞ্জয় কাপুর ও কালকি কোয়েচলিনরা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে নিজেদের ক্ষোভ ঝেড়েছেন। তবে সবচেয়ে আবেগঘন পোস্টটি করেছেন বলিউডের অভিনেত্রী সানি লিওন।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে নিজের দুই বছরের মেয়েশিশু নিশাকে বুকে জড়িয়ে ধরার একটি ছবি পোস্ট করেন সানি। ছবিটি খেয়াল করলে দেখা যাবে, নিজের জ্যাকেটের মধ্যে নিশাকে ঢেকে রেখেছেন সানি।

ছবিটির ক্যাপশনে এ অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘আমি শপথ করছি যে আমার হৃদয়, আত্মা, শরীর ও সবকিছু দিয়ে জগতের সমস্ত খারাপ কিছু থেকে তোমাকে সুরক্ষিত রাখব। এমনকি আমার জীবন দিয়ে হলেও তোমাকে রক্ষা করব। এ জগতের প্রতিটা শিশুই যেন সমস্ত খারাপ জিনিস থেকে এভাবেই সুরক্ষিত থাকে।’

অভিভাবকদের উদ্দেশে সানি বলেন, ‘সবাই নিজের শিশুটিকে এভাবেই আগলে রাখুন, যেন তাদের কোনো খারাপ বিষয়ের জন্য মূল্য দিতে না হয়।’

 

 

ভারতের জম্মুর কাঠুয়া জেলায় আট বছরের এক শিশুকে লাগাতার ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় উত্তাল হয়ে আছে পুরো দেশ। ভয়াবহ এ ঘটনা শিহরণ জাগিয়েছে প্রতিটি মানবিক হৃদয়ে। বিষয়টি নিয়ে তাই চুপ করে থাকছেন না অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও।

বর্ষীয়ান গীতিকার জাভেদ আখতার থেকে শুরু করে অনিল কাপুর, সোনম কাপুর, দিয়া মির্জা, সঞ্জয় কাপুর ও কালকি কোয়েচলিনরা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে নিজেদের ক্ষোভ ঝেড়েছেন। তবে সবচেয়ে আবেগঘন পোস্টটি করেছেন বলিউডের অভিনেত্রী সানি লিওন।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে নিজের দুই বছরের মেয়েশিশু নিশাকে বুকে জড়িয়ে ধরার একটি ছবি পোস্ট করেন সানি। ছবিটি খেয়াল করলে দেখা যাবে, নিজের জ্যাকেটের মধ্যে নিশাকে ঢেকে রেখেছেন সানি।

ছবিটির ক্যাপশনে এ অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘আমি শপথ করছি যে আমার হৃদয়, আত্মা, শরীর ও সবকিছু দিয়ে জগতের সমস্ত খারাপ কিছু থেকে তোমাকে সুরক্ষিত রাখব। এমনকি আমার জীবন দিয়ে হলেও তোমাকে রক্ষা করব। এ জগতের প্রতিটা শিশুই যেন সমস্ত খারাপ জিনিস থেকে এভাবেই সুরক্ষিত থাকে।’

অভিভাবকদের উদ্দেশে সানি বলেন, ‘সবাই নিজের শিশুটিকে এভাবেই আগলে রাখুন, যেন তাদের কোনো খারাপ বিষয়ের জন্য মূল্য দিতে না হয়।’

Leave a Comment